২২ আগস্ট, ২০২০

Xiaomi Mi Band 5: বাজারের সেরা ফিটনেস ট্র্যাকার দাম ২,৮০০টাকা (Price in Bangladesh, Full Review)


Xiaomi Mi Band 5 বর্তমানে বাংলাদেশে বাজারে সেরা একটি ফিটনেস ব্যান্ড। আমাদের সবাই চাই নিজেকে সুন্দর ও স্মার্ট হিসাবে উপস্থাপন করতে। এই কাজটা আরও সহজ হয় যদি হতে একটা স্মার্ট ব্যান্ড বা স্মর্টওয়াচ থাকে। স্মার্টওয়াচের তুলনামূলক ভাবে দাম একটু স্মার্ট ব্যান্ড বা ফিন্টনেস ট্র্যাকার এর চাইতে। তাই আমাদের অনেকেই কম দামের শাওমি ফিটনেস ট্র্যাকার স্মার্ট ব্যান্ড পছন্দ করি।


Mi Band 5 শাওমীর সবথেকে লেটেস্ট ভার্সন মি ব্যান্ড। যার বর্তমান মূল্য ২,৮০০টাকা (Chinese Version - No NFC/ Global Not Available)। পাওয়া যাচ্ছে দেশের সকল অনলাইন ও অফলাইন টেলিকম/গেজেট শপে।  


ফিটনেস ট্র্যাকার হিসাবে সবার পছন্দের শীর্ষে আছে এই Xiaomi Mi Band 5 । দেশের সকল প্রযুক্তি শপে কিনতে পাওয়া যাচ্ছে । দামটা একটু বেশি তবে আশা করা যাচ্ছে দাম আরু কমবে। যদিও শুরুতে এটার দাম ছিল ৩,৪০০টাকার যেটা বর্তমানে কমে হচ্ছে ২,৮০০টাকা। এছাড়া বাংলাদেশের Mi band 4 এর দাম চাইনিজ ভার্সন ২,০০০টাকা আর Mi band 3 এর বর্তমান মূল্য ১,৮০০টাকা। 


Mi Band 5 এর ডিজাইন আগেই সেই বিখ্যাত শাওমি টাইপ ব্যান্ডের মতই কোনো পরিবর্তন নেই। সেই আদিম কাল থেকে দেখে আসছি Mi Band 2 তারপর Mi band 4 সহ এবারের band 5 সেইম ডিজাইন। সামান্য পরিবর্তন হয়েছে ঠিক তবে ডিজাইনে মেজর কোনো পরিবর্তন হয়নি। তারপরও mi band দেখতে খারাপ না, সুন্দর ডিজাইন সাথে ভাল বিল্ড কোয়ালিটি। 


Xiaomi Mi Band 5 এ ব্যবহার করা হয়েছে ১.১" সাইজের অ্যামোলেড ডিসপ্লে। আগের Mi band 4 এ ছিল ০.৯৫" সাইজের ডিসপ্লে যা এখানে আপগ্রেড করা হয়েছে। এছাড়া আগের পুরাতন চার্জিং টাইপের বদলে যুক্ত করা হলে ম্যাগনেটিক চার্জিং সুবিধা। যেটা ব্যবহার করতে কেপসুলটিকে বেল্ট থেকে আলাদা করতে হয় না। এছাড়াও মিউজিক কন্ট্রোল সুবিধা, স্ট্রেস লেভেল চেকিং সুবিধা, রিমোট কেমেরা কন্ট্রোল যুক্ত করা হয়েছে।

Xiaomi Mi Band 5 এ নতুন করে আরও কিছু স্পোর্ট ট্র্যাকিং মোড যুক্ত করা হয়েছে যেমন - Outdoor running, Treadmill, Cycling, Walking, Freestyle, 💓 Pool swimming, Elliptical (New), Rowing machine (New), Jump rope (New), Indoor cycling (New), 😍 Outdoor cycling (New), Yoga (New), 🌟 Breathing Exercise etc.



ভাল দিক:
১. সুন্দর ডিজাইন ও ভাল বিল্ড কোয়ালিটি।
২. অসাধারণ ব্যাটারি ব্যাকআপ। ~১৪ দিন।
৩. বড় ডিসপ্লে।
৪. সহজ মেগনেটিকে চার্জিং সুবিধা।
৫. অসংখ্য ওয়াচ ফেস।
৬. ৫ এটিএম ওয়াটার প্রুফ।
৭. কাস্টম ওয়াচ ফেস ব্যাবহার করা যায়।


খারাপ দিক:
১. Mi band 4 থেকে খুব বেশি পার্থক্য নেই।
২. ডিজাইন ও ফিউচার প্রায় একই নতুন কিছু নেই।
৩. দেশের বাজারে তুলনামূলক দাম বেশি।
৪. Spo2 সেন্সর নেই - ব্লাড অক্সিজেন লেভেল ডিটেক্ট করার জন্য।
৫. NFC নাই।
৬. GPS নাই।